শিরোনাম
নব নির্বাচিত এমপি আলহাজ্ব হাবীব হাসানের কাছে ঢাকা ১৮ আসনের জনগনের প্রত্যাশা ই-পাসপোর্ট যুগে প্রবেশ ৩টি রকেট আঘাত হানলো বাগদাদের মার্কিন দূতাবাদের কাছে সিপিবি’র সমাবেশে বোমা হামলা মামলায় ১০ আসামির মৃত্যুদণ্ড চ্যারিটেবল ট্রাস্ট মামলা: খালেদার জামিন খারিজের পূর্ণাঙ্গ রায় প্রকাশ দুর্ঘটনায় গুরুতর আহত শাবানা আজমি: ‘কর্মফল’ হিসেবে দেখছেন বিজেপি সমর্থকরা সংসদ সদস্য আব্দুল মান্নানের মৃত্যুতে প্রধানমন্ত্রীর শোক বিপিএল-এ এবারের চ্যাম্পিয়ন রাজশাহী কেন্দ্রীয় সরকারের ডাকা জরুরি বৈঠকে যাবে না তৃণমূল কংগ্রেস নতুন কমিশন অনুযায়ী সাপ্তাহিক মজুরি পেতে শুরু করেছে পাটকল শ্রমিকরা

সৌদি বাদশাহ বেড়াবেন, বন্ধ ফরাসী সমুদ্র সৈকত

উত্তরা টাইমস
সম্পাদনাঃ ২৬ জুলাই ২০১৫ - ১২:০৫:২৪ পিএম
সৌদি বাদশাহ হলিডেতে আসবেন বলে সেখানে কাজ চলছে

টাইমস বিডি অনলাইন ডেস্কঃ সৌদি বাদশাহ সালমান যাতে ফরাসী একটি সমুদ্র সৈকতে একাকী বেড়াতে পারেন সেজন্যে সৈকতটি জনগণের জন্যে বন্ধ করে দেওয়ার পর তার প্রতিবাদ জানিয়ে এক লাখেরও বেশি মানুষ একটি পিটিশনে সই করেছে।

পিটিশনটিতে বলা হয়েছে এই ভালোরিস সৈকতে বেড়াতে যাওয়ার সবারই সমান অধিকার থাকা উচিত।

কোনো প্রতিবাদকারী যাতে এই এলাকায় আসতে না পারে সেজন্যে শনিবার থেকে সৈকতটিকে ঘিরে রাখা হয়েছে।

সৌদি রাজ পরিবার এই সৈকতে অবস্থিত একটি ভিলায় তিন সপ্তাহের মতো ছুটি কাটাবেন বলে বলা হচ্ছে।

পরিবারের সাথে এই দলটিতে রয়েছে এক হাজারের মতো লোক।

বাদশাহর ঘনিষ্ঠ লোকজন ভিলাতে অবস্থান করবেন কিন্তু বাকি সাতশো জন থাকবেন কানের বিভিন্ন হোটেলে।

স্থানীয় হোটেল ম্যানেজারদের সমিতি বলছে, এটা তাদের জন্যে একটা সুসংবাদ। কারণ এর মধ্য দিয়ে হোটেলতো বটেই স্থানীয় অর্থনীতিও চাঙ্গা হবে।

la_mirandole

ভালোরিস সমুদ্র সৈকত

সমিতির প্রেসিডেন্ট বলছেন, সৌদি আরব থেকে আসা এই লোকজনের হাতে প্রচুর অর্থ যা দিয়ে তারা কেনা কাটা করবেন।

তবে সৈকতটি বন্ধ করে দেওয়ার জন্যে স্থানীয় অনেকেই ক্ষোভ প্রকাশ করছেন।

তাদের পিটিশনে বলা হয়েছে, এই সৈকত স্থানীয় লোকজন, পর্যটক, ফরাসী নাগরিক, বিদেশি সবার জন্যেই খুলে রাখা উচিত।

সবার জন্যে সমান অধিকার নিশ্চিত করার জন্যে পিটিশনটিতে কর্তৃপক্ষের প্রতি আহবান জানানো হয়েছে।

ভালোরিসের মেয়রও এই সিদ্ধান্তের প্রতিবাদ জানিয়ে প্রেসিডেন্ট ফ্রাঁসোয়া ওলাঁদকে চিঠি লিখেছেন।

সমুদ্র দিয়েও ভিলার তিনশো মিটারের মধ্যে কারো আসা যাওয়ার ওপর কর্তৃপক্ষ নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে।

স্থানীয় একজন মহিলা বলেছেন, “আমি বুঝতে পারছি তাদের নিরাপত্তার দরকার আছে কিন্তু আমারও অধিকার আছে সমুদ্রে সাতার কাটার।”

সর্বশেষ
জনপ্রিয় খবর

Uttara Times

Like us on Facebook!
Sign up for our Newsletter

Enter your email and stay on top of things,

Subscribe!