শিরোনাম
নব নির্বাচিত এমপি আলহাজ্ব হাবীব হাসানের কাছে ঢাকা ১৮ আসনের জনগনের প্রত্যাশা ই-পাসপোর্ট যুগে প্রবেশ ৩টি রকেট আঘাত হানলো বাগদাদের মার্কিন দূতাবাদের কাছে সিপিবি’র সমাবেশে বোমা হামলা মামলায় ১০ আসামির মৃত্যুদণ্ড চ্যারিটেবল ট্রাস্ট মামলা: খালেদার জামিন খারিজের পূর্ণাঙ্গ রায় প্রকাশ দুর্ঘটনায় গুরুতর আহত শাবানা আজমি: ‘কর্মফল’ হিসেবে দেখছেন বিজেপি সমর্থকরা সংসদ সদস্য আব্দুল মান্নানের মৃত্যুতে প্রধানমন্ত্রীর শোক বিপিএল-এ এবারের চ্যাম্পিয়ন রাজশাহী কেন্দ্রীয় সরকারের ডাকা জরুরি বৈঠকে যাবে না তৃণমূল কংগ্রেস নতুন কমিশন অনুযায়ী সাপ্তাহিক মজুরি পেতে শুরু করেছে পাটকল শ্রমিকরা

ন্যাশনাল প্রোডাকটিভিটি অ্যাওয়ার্ড পেল ১৭ প্রতিষ্ঠান

উত্তরা টাইমস
সম্পাদনাঃ ১০ আগস্ট ২০১৫ - ১১:১৬:০৬ এএম

অর্থনৈতিক প্রতিবেদক : শিল্পখাতে বিশেষ অবদানের জন্য ১৭টি প্রতিষ্ঠানকে ন্যাশনাল প্রোডাকটিভিটি অ্যান্ড কোয়ালিটি এক্সিলেন্স অ্যাওয়ার্ড-২০১৩ প্রদান করেছে শিল্প মন্ত্রণালয়। নিজ নিজ শিল্প-কারখানায় উৎপাদনশীলতা বৃদ্ধি ও উৎকর্ষ অর্জনের ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ অবদানের স্বীকৃতি হিসেবে দ্বিতীয়বারের মতো এ পুরস্কার দেওয়া হয়।

শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমু রোববার প্রধান অতিথি হিসেবে রাজধানীর পূর্বাণী হোটেলে নির্বাচিত প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধিদের হাতে এ পুরস্কার তুলে দেন।

২০১৩ সালের জন্য ৬টি ক্যাটাগরিতে ১৭টি শিল্প প্রতিষ্ঠানকে এ পুরস্কারের জন্য নির্বাচন করা হয়েছে। এর মধ্যে পৃথক ক্যাটাগরি হিসেবে বৃহৎ শিল্পে ৩টি,  মাঝারি শিল্পে ৩টি, ক্ষুদ্র শিল্পে ৩টি, মাইক্রো শিল্পে ২টি, কুটির শিল্পে ৩টি এবং রাষ্ট্রায়ত্ত শিল্প ৩টি প্রতিষ্ঠান রয়েছে।

ন্যাশনাল প্রোডাকটিভিটি অর্গানাইজেশনের (এনপিও) আয়োজিত এ অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন শিল্পসচিব মো. মোশাররফ হোসেন ভূঁইয়া।

অনুষ্ঠানে শিল্পমন্ত্রী বলেন, বর্তমান সরকার গৃহিত শিল্পনীতির ফলে বাংলাদেশে শিল্পায়নের ধারা বেগবান হয়েছে। বিশ্বব্যাংকের মূল্যায়নে ইতোমধ্যে বাংলাদেশ নিম্নমধ্যম আয়ের দেশ হিসেবে স্বীকৃতি পেয়েছে। দেশের সাম্প্রতিক অর্থনৈতিক অগ্রগতির পেছনে শিল্পখাতের গুরুত্বপূর্ণ অবদান রয়েছে। টেকসই শিল্পায়নের মাধ্যমে জনগণের জীবন-মানের কাঙ্ক্ষিত পরিবর্তনের লক্ষ্যে শিল্প কারখানায় উৎপাদনশীলতা বৃদ্ধি করতে হবে।

পুরস্কারপ্রাপ্ত প্রতিষ্ঠানগুলো হচ্ছে- (বৃহৎ শিল্প ক্যাটাগরিতে) ঢাকার ব্রিটিশ আমেরিকান টোবাকো বাংলাদেশ কোং লিমিটেড, খুলনা শিপ ইয়ার্ড লিমিটেড ও কুষ্টিয়ার বিআরবি কেবল ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড।

মাঝারি শিল্প ক্যাটাগরিতে-গাজীপুরের এনার্জিপ্যাক ইলেক্ট্রনিক্স লিমিটেড, নারায়ণগঞ্জের তামাই নীট ফ্যাশন লিমিটেড ও ঢাকার সিআইবিএল টেকনোলজি কনসালটেন্স লিমিটেড।

ক্ষুদ্র শিল্প ক্যাটাগরিতে-সাতক্ষীরার মেসার্স রনি অ্যাগ্রো ইঞ্জিনিয়ারিং, পাবনার প্রিন্স কেমিক্যাল কোম্পানি লিমিটেড ও চট্টগ্রামের রেজিম্যাক্স ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড।

মাইক্রো শিল্প ক্যাটাগরিতে-ঢাকার খান বেকেলাইট প্রোডাক্টস ও সিরাজগঞ্জের বন্ধন সমাজ উন্নয়ন সংস্থা।

কুটির শিল্প ক্যাটাগরিতে-ঢাকার অধরা বিউটি পার্লার অ্যান্ড হ্যান্ডিক্রাফট ট্রেনিং সেন্টার, কিশোরগঞ্জের পিন্ধন ও খুলনার গৃহ সুখন।

রাষ্ট্রায়ত্ত শিল্প ক্যাটাগরিতে-জামালপুরের যমুনা ফার্টিলাইজার কোম্পানি লিমিটেড, ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আশুগঞ্জ ফার্টিলাইজার অ্যান্ড কেমিক্যাল কোম্পানি লিমিটেড ও গাজীপুরের ন্যাশনাল টিউবস লিমিটেড।

এতে অন্যদের মধ্যে এনপিও এর পরিচালক ড. মো. নজরুল ইসলাম, যুগ্মপরিচালক আবদুল বাকী চৌধুরী, পুরস্কারের জন্য নির্বাচিত প্রতিষ্ঠান খুলনা শিপ ইয়ার্ড লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক কমোডর সৈয়দ ইরশাদ আহমেদ, ব্রিটিশ আমেরিকান টোবাকো বাংলাদেশ কোং লিমিটেডের চেয়ারম্যান গোলাম মাঈনুদ্দিন, যুগ্ম পরিচালক আবদুল বাকী চৌধুরী ও মেসার্স রনি অ্যাগ্রো ইঞ্জিনিয়ারিং এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক জিএম নূরুল ইসলাম (রনি) বক্তব্য রাখেন।

সর্বশেষ
জনপ্রিয় খবর

Uttara Times

Like us on Facebook!
Sign up for our Newsletter

Enter your email and stay on top of things,

Subscribe!