শিরোনাম
নব নির্বাচিত এমপি আলহাজ্ব হাবীব হাসানের কাছে ঢাকা ১৮ আসনের জনগনের প্রত্যাশা ই-পাসপোর্ট যুগে প্রবেশ ৩টি রকেট আঘাত হানলো বাগদাদের মার্কিন দূতাবাদের কাছে সিপিবি’র সমাবেশে বোমা হামলা মামলায় ১০ আসামির মৃত্যুদণ্ড চ্যারিটেবল ট্রাস্ট মামলা: খালেদার জামিন খারিজের পূর্ণাঙ্গ রায় প্রকাশ দুর্ঘটনায় গুরুতর আহত শাবানা আজমি: ‘কর্মফল’ হিসেবে দেখছেন বিজেপি সমর্থকরা সংসদ সদস্য আব্দুল মান্নানের মৃত্যুতে প্রধানমন্ত্রীর শোক বিপিএল-এ এবারের চ্যাম্পিয়ন রাজশাহী কেন্দ্রীয় সরকারের ডাকা জরুরি বৈঠকে যাবে না তৃণমূল কংগ্রেস নতুন কমিশন অনুযায়ী সাপ্তাহিক মজুরি পেতে শুরু করেছে পাটকল শ্রমিকরা

৯০ দিনের এসিড সন্ত্রাসের বিচার ৯ বছরেও শেষ হয় না

উত্তরা টাইমস
সম্পাদনাঃ ১০ আগস্ট ২০১৫ - ০৯:১১:১৩ এএম

টাইমস বিডি ডটনেট, ঢাকা: এসিড সন্ত্রাসের বিচার ৯০ দিনে শেষ করার কথা থাকলেও ৯ বছরেও তা শেষ হয় না। এতে করে আসামীরা জামিনে এসে মামলা তুলে নেয়ার ও জীবন নাশের হুমকি অব্যাহত রেখেছে। তাছাড়া শাররীক বিকৃতির কারণে চাকুরি ক্ষেত্রেও ভুক্তভোগীদের বিব্রতকর অবস্থায় পরতে হচ্ছে।

সোমবার সকালে জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে সারা দেশে এসিড সহিংসতা, কিশোরগঞ্জের রিপা রানী পন্ডিতকে জোরপূর্বক এসিড পানে বাধ্য করার ঘটনার প্রতিবাদে অনুষ্ঠিত এক মানববন্ধন কর্মসূচীতে ভুক্তভোগীরা এ কথা বলেন।

এসিড সার্ভাইভার ফাউন্ডেশন আয়োজিত মানববন্ধন কর্মসূচীতে বক্তারা এসিড  সহিংসতাসহ সকল ধরণের নারী ও শিশু নির্যাতনের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ানোর আহ্বান জানিয়ে বলেন, এই নৃসংশতার তীব্র নিন্দা জানাই। এর সাথে জড়িতদের বিচার চাই। পুলিশ ও প্রশাসনের পক্ষ থেকে এসব ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত ও যথাযথ উদ্যোগ ন্যায় বিচারকে ত্বরান্বিতি করবে। কিশোরগঞ্জের রিপা রানী পন্ডিতের উপর এসিড সহিংসতাসহ গত কয়েক মাসে দেশের বিভিন্ন স্থানে এসিড সহিংসতার ক্রমবর্ধমান ঘটনায় শঙ্কা প্রকাশ করেন।

বক্তারা আরো বলেন, উদ্বেগের সাথে লক্ষ্য করা যাচ্ছে সরকার প্রণীত এসিড সংশ্লিষ্ট আইন, এসিড অপরাধ দমন ট্রাইব্যুনাল এবং বিশেষ বিশেষ কমিটি থাকা সত্ত্বেও এসিড সন্ত্রাস বন্ধ এবং এসিডের অনিয়ন্ত্রিত ব্যবহার সম্পূর্ণরূপে রোধ করা সম্ভব হয় না। এসিডের অপব্যবহার রোধ ও এসিড সারভাইভারদের সুবিচার নিশ্চিত করতে প্রয়োজন কার্যকর পদক্ষেপ, দক্ষ জনবল এবং সরকারি-বেসরকারি সেবা প্রদানকারী সংস্থাগুলোর মধ্যে সুষ্ঠু সমন্বয়। এসিড অপরাধ দমন আইন ২০০২ ও এসিড নিয়ন্ত্রণ আইন ২০০২ বলবৎ থাকার পরও এই আইন দুটির কঠোর বাস্তবায়নের অভাবে এসিডের অনিয়ন্ত্রিত ব্যবহার ও এসিড সন্ত্রাস রোধ এবং ন্যায়বিচার নিশ্চিত করা সম্ভব হচ্ছে না।

মানব বন্ধন কর্মসূচীতে উপস্থিত ছিলেন, এসিড সার্ভাইভার ফাউন্ডেশনের নির্বাহী পরিচালক সেলিনা আহমেদ ও ট্রাস্টি বোর্ডের মেম্বার একে মাসুদ আহমেদসহ এসিড সন্ত্রাসের শিকার ভুক্তভোগীরা।

এক পরিসংখ্যানে দেখা যায়, গত ১২ বছরে এসিড সন্ত্রাসের মামলায় ১৩ আসামীর বিরুদ্ধে মৃত্যুদন্ডের রায় হয়েছে, কিন্তু এখনো কারো মৃত্যুদন্ডের রায় কার্যকর হয়নি। ২০০২ থেকে ২০১৫ সালের মে মাস পর্যন্ত সরকারি হিসেব অনুযায়ী সারা দেশে এসিড সহিংসতায় মামলা হয়েছে ১৯৮৭টি। মামলায় মোট অভিযুক্ত ৫৩১২ জন। তাদের মধ্যে মাত্র ৬৪৯ জনকে পুলিশ গ্রেফতার করতে পেরেছে। যা মোট অভিযুক্তের হিসেবের ১২ শতাংশ। বাকী ৮৮ শতাংশ অভিযুক্ত ব্যক্তি পুলিশের ধরা-ছোঁয়ার বাইরেই থেকে গেছে।

সর্বশেষ
জনপ্রিয় খবর

Uttara Times

Like us on Facebook!
Sign up for our Newsletter

Enter your email and stay on top of things,

Subscribe!