শিরোনাম
নব নির্বাচিত এমপি আলহাজ্ব হাবীব হাসানের কাছে ঢাকা ১৮ আসনের জনগনের প্রত্যাশা ই-পাসপোর্ট যুগে প্রবেশ ৩টি রকেট আঘাত হানলো বাগদাদের মার্কিন দূতাবাদের কাছে সিপিবি’র সমাবেশে বোমা হামলা মামলায় ১০ আসামির মৃত্যুদণ্ড চ্যারিটেবল ট্রাস্ট মামলা: খালেদার জামিন খারিজের পূর্ণাঙ্গ রায় প্রকাশ দুর্ঘটনায় গুরুতর আহত শাবানা আজমি: ‘কর্মফল’ হিসেবে দেখছেন বিজেপি সমর্থকরা সংসদ সদস্য আব্দুল মান্নানের মৃত্যুতে প্রধানমন্ত্রীর শোক বিপিএল-এ এবারের চ্যাম্পিয়ন রাজশাহী কেন্দ্রীয় সরকারের ডাকা জরুরি বৈঠকে যাবে না তৃণমূল কংগ্রেস নতুন কমিশন অনুযায়ী সাপ্তাহিক মজুরি পেতে শুরু করেছে পাটকল শ্রমিকরা

‘নামে আছে শিক্ষায় নেই’ পাঁচ বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়!

উত্তরা টাইমস
সম্পাদনাঃ ৩০ জুলাই ২০১৫ - ০২:৩৫:১৬ পিএম

টাইমস বিডি ডটনেট, ডেস্ক, ঢাকাঃ শিক্ষার্থীদের উচ্চশিক্ষার ক্রমবর্ধমান চাহিদা পূরণ ও সম্প্রসারণ, সর্ব সাধারণের জন্য উচ্চশিক্ষা সুলভকরণ এবং এর মাধ্যমে দক্ষ জনশক্তি সৃষ্টির উদ্দেশ্যে বর্তমানে ৮৩টি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় রয়েছে। তারমধ্যে পাঁচটি এখনো শিক্ষা কার্যক্রম শুরই করতে পারেনি। এই পাঁচটির মধ্যে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর অধীনে রয়েছে তিনটি এবং অন্য দুটি হচ্ছে গ্লোবাল ইউনিভার্সিটি ও টাইমস ইউনিভার্সিটি।

বুধবার জাতীয় সংসদ ভবনে দশম জাতীয় সংসদের ‘শিক্ষা মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটি’র ১১তম বৈঠকে এ তথ্য উপস্থাপিত হয়। এতে কমিটি সদস্য মো. আব্দুল কুদ্দুস এর সভাপতিত্ব করেন।

সংসদ সচিবালয়ের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, বিগত সকল বৈঠকের গৃহীত সিদ্ধান্তসমূহের বাস্তবায়ন অগ্রগতি সম্পর্কে এবং ইউজিসি অনুমোদিত সকল বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের হালনাগাদ তথ্য সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা হয়।

কমিটি সূত্রে জানা যায়, বৈঠকে বর্তমানে ৮৩টি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় রয়েছে বলে উল্লেখ করা ঘয়। এরমধ্যে পাঁচটি বিশ্ববিদ্যালয় এখনো শিক্ষা কার্যক্রম শুরুই করতে পারেনি। এ পাঁচ বিশ্ববিদ্যালয় হচ্ছে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর অধীনে তিনটি এবং গ্লোবাল ইউনিভার্সিটি ও টাইমস ইউনিভার্সিটি। সৈয়দপুর, কাদিরাবাদ ও কুমিল্লায় বাংলাদেশ সেনাবাহিনী তিনটি বিশ্ববিদ্যালয় চালানোর অনুমোদন পায়।

এদিকে আবার ৯টি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় সরকারি অনুমোদন ছাড়াই একাধিক ক্যাম্পাসে শিক্ষা কার্যক্রম পরিচালনা করছে। সরকারি অনুমোদন ছাড়া শিক্ষা কার্যক্রম পরিচালনা অবৈধ হলেও হাইকোর্টের দোহাই দিয়ে এসব বিশ্ববিদ্যালয় অবৈধ ক্যাম্পাসেই শিক্ষা কার্যক্রম পরিচালনা করছে।

যেসব বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের অবৈধ ক্যাম্পাস রয়েছে তারমধ্যে দারুল ইহসান বিশ্ববিদ্যালয়, এশিয়ান ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশ, অতীশ দীপংকর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, সাউদার্ণ ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশ, নর্দান উইনিভার্সিটি অব বাংলাদেশ, দি পিপলস ইইনিভার্সিটি অব বাংলাদেশ, বিজিসি ট্রাস্ট ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশ (চট্টগ্রাম), ইবাইস ইউনিভার্সিটি ও আন্তর্জাতিক ইসলামিক ইউনিভার্সিটি (চট্টগ্রাম)।

সূত্র জানায়, বৈঠকে বর্তমান অর্থবছরে এমপিওভুক্ত বিদ্যালয়ের সংখ্যা বৃদ্ধির জন্য সুপারিশ করে কমিটি। শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের অনুকূলে বাজেটে অর্থ বরাদ্দ বাড়ানোর জন্য কমিটির সভাপতির নেতৃত্বে প্রধানমন্ত্রীর নিকট দাবি পেশের বিষয়ে বৈঠকে সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়।

মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের মা সমাবেশে স্থানীয় সংসদ সদস্য উপস্থিতি নিশ্চিত করতে এবং বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শিক্ষাবিদ ও শিক্ষানুরাগী ব্যক্তিদের সভাপতি মনোনয়নে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে সুপারিশ করে কমিটি।

বৈঠকে কমিটি সদস্য শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ, জাহাঙ্গীর কবীর নানক, মো. ছলিম উদ্দীন তরফদার, গোলাম মোস্তফা, এস. এম. আবুল কালাম আজাদ, মোহা. মামুনুর রশিদ এবং সেলিনা আক্তার বানু বৈঠকে অংশগ্রহণ করেন। এছাড়া বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশনের চেয়ারম্যান, মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক, মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিবসহ মন্ত্রণালয় এবং জাতীয় সংসদ সচিবালয়ের সংশ্লিষ্ট ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

সর্বশেষ
জনপ্রিয় খবর

Uttara Times

Like us on Facebook!
Sign up for our Newsletter

Enter your email and stay on top of things,

Subscribe!