শিরোনাম
নব নির্বাচিত এমপি আলহাজ্ব হাবীব হাসানের কাছে ঢাকা ১৮ আসনের জনগনের প্রত্যাশা ই-পাসপোর্ট যুগে প্রবেশ ৩টি রকেট আঘাত হানলো বাগদাদের মার্কিন দূতাবাদের কাছে সিপিবি’র সমাবেশে বোমা হামলা মামলায় ১০ আসামির মৃত্যুদণ্ড চ্যারিটেবল ট্রাস্ট মামলা: খালেদার জামিন খারিজের পূর্ণাঙ্গ রায় প্রকাশ দুর্ঘটনায় গুরুতর আহত শাবানা আজমি: ‘কর্মফল’ হিসেবে দেখছেন বিজেপি সমর্থকরা সংসদ সদস্য আব্দুল মান্নানের মৃত্যুতে প্রধানমন্ত্রীর শোক বিপিএল-এ এবারের চ্যাম্পিয়ন রাজশাহী কেন্দ্রীয় সরকারের ডাকা জরুরি বৈঠকে যাবে না তৃণমূল কংগ্রেস নতুন কমিশন অনুযায়ী সাপ্তাহিক মজুরি পেতে শুরু করেছে পাটকল শ্রমিকরা

বিরল গোলাপি হীরা, নিলামে বিক্রি হলো ৪২০ কোটি টাকায়

উত্তরা টাইমস
সম্পাদনাঃ ১৪ নভেম্বর ২০১৮ - ০৩:৪৬:৪০ পিএম

প্রায় ৪২০ কোটি টাকায় উনিশ ক্যারেট ওজনের এক দুষ্প্রাপ্য গোলাপি হীরা বিক্রি হয়েছে। সুইজারল্যান্ডের জেনেভায় ঐতিহাসিক জিনিসপত্রের
নিলামঘর ক্রিস্টিসে এই নিলাম অনুষ্ঠিত হয় মঙ্গলবার।

প্রতিষ্ঠানটি বলছে, এ জাতীয় হীরার ক্যারেট প্রতি মূল্যে এটাই এখন বিশ্ব রেকর্ড। এর আভিজাত্যের কারণে এই হীরার নামকরণ করা হয়েছে ‘দ্য
পিঙ্ক লিগ্যাসি’।

আনন্দবাজার জানায়, গোলাপি হীরা খুবই দুষ্প্রাপ্য, তার ওপর এর ওজন নিয়েও বিস্মিত রত্নবিশেষজ্ঞরা। এর আগে ২০১৭ সালের নভেম্বরে হংকংয়ে
১৫ ক্যারেটের একটি গোলাপি হীরা নিলামে ওঠে। হীরাটি বিক্রি হয় ২৭২ কোটি টাকায়।

কিন্তু ২৭২ কোটিকে হার মানিয়ে এ পর্যন্ত নিলামের ইতিহাসে ‘দ্য পিঙ্ক লিগ্যাসি’সবচেয়ে দামি হীরায় পরিণত হয়েছে।

এই হীরকখণ্ডটি এতদিন দক্ষিণ আফ্রিকার প্রসিদ্ধ ওপেনহেইমার পরিবারের কাছে ছিল। আর এই পরিবারটি ডি বিয়ার্স নামের বিশ্বের নামকরা
হীরকখনি কোম্পানির মালিক।

আর নিলামে তোলার পর দুষ্প্রাপ্য এই হীরকখন্ডটি সর্বোচ্চ দামে কিনেছে যুক্তরাষ্ট্রের বিলাসবহুল ব্রান্ড হেরি উইন্সটন।

ক্রিস্টি’র ইউরোপীয় প্রধান ফ্রান্সিস কুরিয়েল বলেন, সকল প্রকার ফি ও কমিশনসহ দুষ্প্রাপ্য এই গোলাপি হীরার প্রতি ক্যারেট বিক্রি হয়েছে প্রায়
২২ কোটি টাকায়।

ক্রয়কারী প্রতিষ্ঠান হীরকখণ্ডটি কিনে নেয়ার সঙ্গে সঙ্গেই এর নামকরণ করে ‘উইন্সটন পিঙ্ক লিগেসি’। এই হিরাকে বিশ্বের অন্যতম একটি হীরা বলে অভিহিত করেছেন ক্রিস্টির আন্তর্জাতিক অলঙ্কার বিষয়ক প্রধান রাহুল কাডাকিয়া।

জানা যায় প্রায় এক শতাব্দী আগে ১৮ দশমিক ৯৬ ক্যারেটের এই হীরকখণ্ডটি দক্ষিণ আফ্রিকার একটি খনি থেকে পাওয়া যায়। অনুমান করা হয় ১৯২০ সালের দিকে পাওয়া এই হীরকখন্ডটি। যা এখনও রয়েছে পুরো অক্ষত ।

সর্বশেষ
জনপ্রিয় খবর

Uttara Times

Like us on Facebook!
Sign up for our Newsletter

Enter your email and stay on top of things,

Subscribe!