শিরোনাম
নব নির্বাচিত এমপি আলহাজ্ব হাবীব হাসানের কাছে ঢাকা ১৮ আসনের জনগনের প্রত্যাশা ই-পাসপোর্ট যুগে প্রবেশ ৩টি রকেট আঘাত হানলো বাগদাদের মার্কিন দূতাবাদের কাছে সিপিবি’র সমাবেশে বোমা হামলা মামলায় ১০ আসামির মৃত্যুদণ্ড চ্যারিটেবল ট্রাস্ট মামলা: খালেদার জামিন খারিজের পূর্ণাঙ্গ রায় প্রকাশ দুর্ঘটনায় গুরুতর আহত শাবানা আজমি: ‘কর্মফল’ হিসেবে দেখছেন বিজেপি সমর্থকরা সংসদ সদস্য আব্দুল মান্নানের মৃত্যুতে প্রধানমন্ত্রীর শোক বিপিএল-এ এবারের চ্যাম্পিয়ন রাজশাহী কেন্দ্রীয় সরকারের ডাকা জরুরি বৈঠকে যাবে না তৃণমূল কংগ্রেস নতুন কমিশন অনুযায়ী সাপ্তাহিক মজুরি পেতে শুরু করেছে পাটকল শ্রমিকরা

ইমরান খানকে সরাতে পাক সেনা প্রধানের গোপন বৈঠক

উত্তরা টাইমস
সম্পাদনাঃ ০৫ অক্টোবর ২০১৯ - ০৪:২৮:১৫ পিএম

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : পাকিস্তানে আবারও সেনা অভ্যুত্থানের আশঙ্কা তৈরি হয়েছে। দেশটির সেনা প্রধান ‘১১১ ব্রিগেডে’র ছুটি বাতিলের নির্দেশ দেওয়ায় বিভিন্ন গণমাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান ক্ষমতা হারাতে চলেছেন বলে খবর উঠেছে।

ইমরান গদি হারাতে পারেন এ খবর বেশ জলদি চাউর হয়েছে ‘১১১ ব্রিগেডের’ ছুটি বাতিল ঘোষণার কারণেই। কেননা, এর আগে তিনবার ১১১ ব্রিগেড ব্যবহার করে নির্বাচিত সরকার ফেলে দিয়েছে পাকিস্তান আর্মি।

প্রতিবেদনগুলোতে বলা হয়েছে, গোপন একটি বৈঠক করেছেন পাকিস্তানের সেনাপ্রধান জেনারেল কামার জাভেদ বাজওয়া। ওই বৈঠকে পাকিস্তানের শীর্ষস্থানীয় শিল্পপতিরা উপস্থিত ছিলেন। যদিও ওই বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন না ইমরান খান।

জানা গেছে, বুধবারের ওই বৈঠকের পরই পাকিস্তান সেনাবাহিনীর সব বিভাগের কর্মী ও সদস্য ছুটি বাতিল ঘোষণা করা হয়। তাদের প্রত্যেককে কাজে যোগ দিতে নির্দেশ দেয়া হয়। ১১১ ইনফ্যান্ট্রি ব্রিগেডের সব অফিসারদেরও একই নির্দেশ পাঠানো হয়।

পাকিস্তান সেনাবাহিনীর ইন্টার সার্ভিস পাবলিক রিলেশন বা আইএসপিআর জানিয়েছে, দেশের অভ্যন্তরীণ নিরাপত্তার স্বার্থেই ওই বৈঠক করা হয়েছে। তবে যদি তাই হয়, তাহলে গুরুত্বপূর্ণ ওই বৈঠকে ইমরান কেন উপস্থিত ছিলেন না- তা নিয়ে প্রশ্ন উঠছে?
এদিকে সামরিক অভ্যুত্থানের খবর চাউর হওয়ার মূল কারণ হিসেবে বলা হচ্ছে, ১১১ ইনফ্যান্ট্রি ব্রিগেডের ছুটি বাতিলকে। কারণ এ পর্যন্ত পাকিস্তানে যে চারবার সামরিক অভ্যুত্থান হয়েছে, তার মধ্যে দুটিই ঘটিয়েছে এই ১১১ ইনফ্যান্ট্রি ব্রিগেড।

ভারতীয় গণমাধ্যম বলছে, পাকিস্তানের বিরোধীদের দাবি ইমরান খানকে ক্ষমতায় বসানোর নেপথ্যে রয়েছে সেনাবাহিনী। আর কাশ্মীর ইস্যু ইমরান যেভাবে সামলেছেন, তাতে ‘সেনাবাহিনীর পুতুল’ ইমরানের ওপর অসন্তুষ্ট সেনাবাহিনী।

অন্যদিকে পাকিস্তানি গণমাধ্যমের খবরে বলা হয়েছে, ইমরান খানকে সরাতে ইসলামাবাদে অবরোধের ডাক দিয়েছে দেশটির অন্যতম প্রভাবশালী রাজনৈতিক দল জামিয়েত উলেমায়ে ইসলাম। আগামী ২৭ অক্টোবর ‘আজাদী মার্চ’ নামে ওই অবরোধ কর্মসূচি পালন করবে তারা।

উল্লেখ্য, পাকিস্তানে এখন পর্যন্ত মোট চারবার অভ্যুত্থান ঘটিয়েছে দেশটির সেনাবাহিনী। ১৯৫৮, ১৯৬৯, ১৯৭৭ এবং ১৯৯৯ সালে অভ্যুত্থান ঘটায় সেনাবাহিনী। এর মধ্যে দুইবার সেনাবাহিনীর ১১১ ইনফ্যান্ট্রি ব্রিগেডকে ব্যবহার করে সরকারের পতন ঘটানো হয়েছে।

সর্বশেষ
জনপ্রিয় খবর

Uttara Times

Like us on Facebook!
Sign up for our Newsletter

Enter your email and stay on top of things,

Subscribe!