শিরোনাম
নব নির্বাচিত এমপি আলহাজ্ব হাবীব হাসানের কাছে ঢাকা ১৮ আসনের জনগনের প্রত্যাশা ই-পাসপোর্ট যুগে প্রবেশ ৩টি রকেট আঘাত হানলো বাগদাদের মার্কিন দূতাবাদের কাছে সিপিবি’র সমাবেশে বোমা হামলা মামলায় ১০ আসামির মৃত্যুদণ্ড চ্যারিটেবল ট্রাস্ট মামলা: খালেদার জামিন খারিজের পূর্ণাঙ্গ রায় প্রকাশ দুর্ঘটনায় গুরুতর আহত শাবানা আজমি: ‘কর্মফল’ হিসেবে দেখছেন বিজেপি সমর্থকরা সংসদ সদস্য আব্দুল মান্নানের মৃত্যুতে প্রধানমন্ত্রীর শোক বিপিএল-এ এবারের চ্যাম্পিয়ন রাজশাহী কেন্দ্রীয় সরকারের ডাকা জরুরি বৈঠকে যাবে না তৃণমূল কংগ্রেস নতুন কমিশন অনুযায়ী সাপ্তাহিক মজুরি পেতে শুরু করেছে পাটকল শ্রমিকরা

মাসে একবার বড় রাস্তা বন্ধ করে খেলাধুলা আয়োজনের নির্দেশ মেয়রের

উত্তরা টাইমস
সম্পাদনাঃ ১১ অক্টোবর ২০২১ - ১০:০৫:০৬ পিএম

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ-
ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) প্রতিটি ওয়ার্ডের যেকোনো একটি বড় রাস্তা মাসে একবার (ছুটির দিনে) বন্ধ করে খেলাধুলার আয়োজন করতে সংশ্লিষ্ট কাউন্সিলরদের নির্দেশনা দিয়েছেন সংস্থাটির মেয়র আতিকুল ইসলাম।

সোমবার (১১ অক্টোবর) বিকেলে রাজধানীর একটি হোটেলে মেয়রস কাপ টুর্নামেন্টের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তিনি এ নির্দেশনা দেন।

ডিএনসিসি মেয়র বলেন, আগে পাড়া-মহল্লায় মানুষের মাঝে পারিবারিক বন্ধন ছিল। শবে বরাতের রাতে একে অপরের বাড়িতে হালুয়া, চালের রুটি নিয়ে বেড়াতে যেতেন। এখন সবাই আত্মকেন্দ্রিক হয়ে গেছে। বাবা সন্তানদের খবর রাখে না, ছেলেমেয়েরাও বাবার খোঁজ রাখে না। সবাই নিজেকে নিয়ে ব্যস্ত। এ অবস্থান থেকে আমাদের পরিত্রাণ পেতে হবে। তাই আমি ডিএনসিসির ৫৪টি ওয়ার্ডের কাউন্সিলরদের বলতে চাই, আপনারা নিজ নিজ ওয়ার্ডের সবচেয়ে বড় রাস্তা মাসে একদিন বন্ধ রাখবেন। সেখানে ফুটবল, ক্রিকেটসহ অন্যান্য খেলার আয়োজন করবেন। যাতে সবাই খেলাধুলায় অংশগ্রহণ করতে পারেন।

তিনি বলেন, এ খেলাধুলার মাধ্যমে পাড়া-মহল্লায় উৎবের রূপ নেবে। একে অপরের সঙ্গে একটি বন্ধনের সৃষ্টি হবে। যে ওয়ার্ড সবচেয়ে বেশি খেলাধুলার আয়োজন করবে, সে কাউন্সিলরকে পুরস্কৃত করা হবে।

মেয়র আতিকুল ইসলাম বলেন, অনেক ল্যান্ড ডেভেলপার কোম্পানি পত্রিকায় বিজ্ঞাপন দেওয়ার সময় নিজেদের নকশায় পার্ক, মাঠ, মসজিদসহ উন্মুক্ত স্থান দেখান। কিন্তু যখন জমির দাম বেড়ে যায় তখন তারা এসব জায়গা বিক্রি করে দেন। সবুজ উদ্যান বলতে কোনো কিছুই অবশিষ্ট থাকে না। আপনারা আগামী প্রজন্মের কাছে কী জবাব দেবেন তা একবার নিজেকে প্রশ্ন করুন।

খেলার মাঠ না থাকায় তরুণ প্রজন্মের একটি অংশ মাদকের দিকে ঝুঁকছে জানিয়ে আতিকুল ইসলাম বলেন, এই তরুণ প্রজন্মকে রক্ষায় আমাদের সবাইকে এগিয়ে আসতে হবে। বিশেষ করে করপোরেট প্রতিষ্ঠানগুলোকে বিভিন্ন টুর্নামেন্টে স্পন্সর করতে হবে। ডিএনসিসি ২৪টি মাঠ আধুনিকায়ন করছে। এরই মধ্যে অনেকগুলো মাঠ খুলে দেওয়া হয়েছে। সেখানে শিশুরা খেলাধুলা করতে পারছে।

সর্বশেষ
জনপ্রিয় খবর

Uttara Times

Like us on Facebook!
Sign up for our Newsletter

Enter your email and stay on top of things,

Subscribe!